১০৫ জন বাংলাদেশিকে ক্ষতিপূরণ দেবে ফ্লাই দুবাই


 সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) এর সরকারের ইমিগ্রেশন নিয়ম না মেনেই ১০৫ প্রবাসী বাংলাদেশিকে বোর্ডিং পাশ দিয়ে দুবাই নিয়ে যায় ফ্লাই দুবাই। আর তারপরই সবাইকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয় দুবাই ইমিগ্রেশন পুলিশ।

এমন অবহেলা করায় ওই প্রবাসী বাংলাদেশিদের ক্ষতিপূরণ দিবে ফ্লাই দুবাই। সবাইর টিকিটের টাকা ফেরত সহ আনুষঙ্গিক সকল খরচ বাবদ অতিরিক্ত প্রায় ৩৫০০ টাকা দেবে ঐ দেশের বিমান সংস্থাটি।

গত রোববার ফ্লাই দুবাইকে এমন ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য করেন  বাংলাদেশের হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ম্যাজিস্ট্রেট শেখ হাফিজুর রহমান। ঘটনার এ বিষয়ে শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দর এক সূত্রে জানায়, গত অক্টোবর ফ্লাই দুবাইয়ের দুটি ফ্লাইট যোগে ঢাকা থেকে ৫২ জন এবং চট্টগ্রাম থেকে ৫৩ জন মোট ১০৫ যাত্রী দুবাই যায়। তবে তাদেরকে গতকাল রোববার দুবাই বিমানবন্দর থেকে বাংলাদেশ এ ফেরত পাঠানো হয়। তাদের দুবাই থেকে সড়ক পথে ইউএইর দেশ আল আইন এবং আবুধাবিতে যাওয়ার কথা ছিল।

তবে প্রায় শতাধিক যাত্রী এবং এয়ারলাইন্সের সাথে কথা বলে ম্যাজিস্ট্রেট শেখ হাফিজুর রহমান এ বিষয়ে নিশ্চিত হন, ফেরত আসার জন্য ফ্লাই দুবাই এমন গাফিলতির জন্য দায়ী। সংযুক্ত আরব আমিরাত এর ইমিগ্রেশন নিয়ম অনুসরণ করলে এ সকল যাত্রীদের দুবাইগামী ফ্লাইটে বোর্ডিং করানোর কোনো সুযোগ একেবারেই নেই। তবে ফ্লাই দুবাই এমনটাই করেছে।

গতকাল রোববার ভোগান্তির শিকার এমন যাত্রীদের উপস্থিতিতে কথা শোনার পর ফ্লাই দুবাই এর কর্তৃপক্ষ ফেরত আসা মোট ১০৫ জন যাত্রীর প্রত্যেককে আগামী ১৮ অক্টোবরের মধ্যে সকল ক্ষতিপূরণ বাবদ টিকিটের সব ক্রয়মূল্য এবং অন্যান্য খরচ বাবদ আরও প্রায় ৩৫০০ টাকা করে প্রদানের লিখিত অঙ্গীকার করেন থাকেন।

 

গত অক্টোবর বৃহস্পতিবার ফ্লাইট থাকলেও একদিন দেরি করে অক্টোবর ঢাকা ছাড়ে ফ্লাই দুবাই। তারা দুবাই বিমান বন্দরে পৌঁছার পর তাদের অনুমতিপত্র না থাকায় ঐ খানের পুলিশ তাদেরকে আটক করে। দুই দিন পর দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়। এই প্রবাসীরা প্রায় ৭৫ ঘণ্টা দুবাই বিমান বন্দরে অবস্থান করেন। সময় তাদেরকে কোন ধরনের খাবারও দেয়া হয়নি।

 

 


Post a Comment

Thank You

নবীনতর পূর্বতন